বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন

কাতার বিশ্বকাপের শ্রমিকদের প্রতিবাদ, গ্রেফতার ৬০

অফিস ডেস্ক ::
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট, ২০২২
  • ১১৬ পড়েছেন

কাতার বিশ্বকাপের ক্ষণগণনা শুরু হলেও শেষ মুহূর্তে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ না করায় বিপাকে পড়তে হচ্ছে আয়োজকদের। কর্মীদের বেতন পরিশোধ না করায়, কাতারের ব্যস্ততম শহরগুলোতে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন তারা। সংকট সমাধান না করে, ৬০ জনকে গ্রেফতার করেছে কাতার পুলিশ। বিশ্বকাপের আগে শ্রমিকদের মানবাধিকার নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছেন শ্রমিক মানবাধিকারবিষয়ক সংস্থা ইকুইডেমের ডিরেক্টর মুস্তাফা কাদরি।

কাতারজুড়ে চলছে বিশ্বকাপ আয়োজনের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। চলতি বছর কাতারে আয়োজিত এই মহাযজ্ঞে, ফুটবল বিশ্বকাপের মূল উদ্দেশ্যে হিসেবে প্রাধান্য পাবে, বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আগত দর্শনার্থীদের একত্রিত করে সফলভাবে আয়োজন শেষ করা । চোখ ধাঁধানো সব আয়োজনে বিশ্বকে চমকে দিতে প্রস্ততি চলছে কাতারের শহরগুলোতে। তবে, বিশ্বজুড়ে ঐক্য সৃষ্টির এই মহাযজ্ঞে বরাবরের মতো আবারো অভিযোগ উঠেছে মানবাধিকার লঙ্ঘনের।

বিশ্বকাপ মহারণ সামনে রেখে কাতারজুড়ে আটটি নান্দনিক স্টেডিয়াম, খেলোয়াড় ও ম্যাচ সংশ্লিষ্টদের থাকার জায়গা ও বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আগত দর্শনার্থীদের জন্য তৈরি করা হয়েছে হোটেল-মোটেলসহ নানা ধরনের স্থাপনা। নান্দনিক এসব স্থাপনা তৈরিতে গত কয়েক বছর ধরে নিরলস শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন শ্রমিকরা। তবে, অভিযোগ উঠেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির বিশ্বকাপের বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন ভাতা পরিশোধ করছে না কাতার।

শ্রমিকদের প্রাপ্য বেতন পরিশোধ না করায় কাতারের বিভিন্ন রাস্তায় প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন তারা। কাতারের বিভিন্ন পথে প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারী ৬০ জন বিদেশি শ্রমিককে গ্রেপ্তার করেছে কাতারি পুলিশ। গত কয়েক মাস ধরে আটকে থাকা বেতন-ভাতা আদায়ের প্রতিবাদে বিক্ষভে অংশ নেয়া কর্মীদের গ্রেপ্তার করে তাদের তীব্র গরমে আটক করে রাখা হয়। যেখানে ৩০০ এর ও বেশি বাংলাদেশ, নেপাল, ইজিপ্ট, ইন্ডিয়া ও ফিলিপিনের কর্মীদেরও দেখা গিয়েছে।

কাতারের শ্রম আইন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের এ ধরনের কাজের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে কর্মীরা বিক্ষোভ করেছেন। তাদের দাবি, কর্মীদের বেতন-ভাতা , চিকিতসা সেবা ও শ্রমিকদের প্রাপ্য সম্মান নিশ্চিতকরণে এ ধরনের প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন কাতারে কর্মরত প্রবাসী কর্মীরা।

শ্রমিক মানবাধিকার সংস্থা ইকুইডেমের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মুস্তাফা কাদরী বলেন, ‘গত কয়েক মাস ধরে কাতারে কর্মরতদের বেতন পরিশোধ করছে না কর্তৃপক্ষ। কর্মীরা নিজেদের অধিকার আদায়ের দাবিতে পথে নেমেছে। বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষকে একত্র করতে চলতি বছরেই কাতারে বসতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ মহারণ। তবে, ঐক্যের এই আসর বসলেও কাতারজুড়ে কর্মীরা মানবাধীকার লঙ্ঘনের শিকার হচ্ছেন। বিশ্বকাপের এই আসরের আগে কর্মীদের মানবাধিকারের বিষয়ে সোচ্চার অবস্থান নেয়া উচিত কাতারি কর্তৃপক্ষকে।’

এদিকে প্রতিবাদ সমাবেশের পর, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্মীদের সব বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu