• E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১১:০২ অপরাহ্ন

×
সংবাদ শিরোনাম :
ঐচ্ছিক তহবিলের চেক বিতরণ করেন অধ্যাপক রুনু রেজা এমপি রামপালে ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর আন্তঃঘাঁটি সাঁতার ও ওয়াটার পোলো প্রতিযোগিতা-২০২৪ সমাপ্ত স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ জিয়াউর রহমান এর ৪৩তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে – মঞ্জু প্রধান সম্পাদকের মায়ের মৃত্যুতে খুলনা টাইমস পরিবারের শোক রূপসা জাবুসায় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফেরদৌস আহম্মেদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহাগের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ: খুলনা মহানগর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সুজনের মায়ের ইন্তেকাল দেশের বিভিন্ন স্থানে ৫.৪ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত রামপালে কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মা মেয়ে আহত

খুলনায় বিএনপি কর্মীদের হামলায় জেলা পরিষদের নিরাপত্তা কর্মী আহত

  • Update Time : শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৪৩৯ Time View

খুলনায় বিএনপি’র বিভাগীয় সমাবেশে আসা কর্মীদের হামলায় জেলা পরিষদের নিরাপত্তা কর্মী আলমগীর হোসেন আহত হয়েছেন। জেলা পরিষদের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির পাদদেশে আবর্জনা রাখাতে বাধা দেয়ায় এ হামলা চালায় বিএনপি কর্মীরা। শনিবার বিকাল ৩টায় খুলনা জেলা পরিষদে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
ঘটনায় আহত জেলা পরিষদের নিরাপত্তা কর্মী আলমগীর হোসেন দেশ সংযোগকে জানান, শনিবার ছুটির দিনে আমি জেলা পরিষদ চত্ত্বরে কর্তব্যরত ছিলাম। এসময়ে কেডি ঘোষ রোডে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ চলছিলো। সমাবেশে আগত উচ্ছৃঙ্খল ৪/৫ জন কর্মী জেলা পরিষদের ভিতরে ঢুকে খাবারের প্যাকেটসহ আবর্জনা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির পাদদেশে স্তুপ করে রাখে। আমি তাদেরকে ওই আবর্জনা সরাতে বললে তারা আমার উপরে উত্তেজিত হয়ে শারীরিকভাবে আঘাত করে। এসময়ে আমার নাক ফেটে ফিনকি দিয়ে রক্ত বের হয়। আমি রক্তাক্ত অবস্থায় মঞ্চে গিয়ে নেতৃবৃন্দকে জানালে তারা কোন সদুত্তর দেয়নি। আহত অবস্থায় আমি সদর হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেই। বিষয়টি আমি আমার কর্র্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। সরকারি বিধানমতে আমার কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।
প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক প্রবীর বিশ্বাস জানান, বিএনপি’র ৫/৭ জন কর্মী জেলা পরিষদের ভিতরে ঢুকে খাবার খেয়ে প্যাকেট আবর্জনা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতির পাদদেশে রাখলে নিরাপত্তা কর্মী আলমগীর হোসেন তাদেরকে আবর্জনাগুলো সরাতে বলে। এসময়ে বিএনপির কর্মীরা না সরিয়ে নিরাপত্তা কর্মীর উপর ক্ষিপ্ত হয়। পরবর্তীতে তার উপর শারীরিক আঘাত করলে নাক ফেঁটে ফিনকি দিয়ে রক্ত বের হয়। পরবর্তীতে আলমগীর হোসেন সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যায় বলে আমি জানতে পারি।
এ ব্যাপারে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ শেখ হারুনুর রশীদ জানান, ঘটনাটি আমি শুনেছি। আগামীকাল অফিসে গিয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
এ ঘটনায় মামলা করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জেলা পরিষদ সূত্রে জানায়।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: BD IT SEBA