বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

নগরীর হরিণটানার আন্দিরঘাট এলাকায় এক যুবতী খুন: লাশ উদ্ধার

জিলহাজ হাওলাদার
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ৫ জুলাই, ২০২৩
  • ৪১২ পড়েছেন
খুলনার হরিণটানা থানাধীন রায়েরমহল এলাকার আন্দিরঘাট ব্রিজের দক্ষিণ পার্শ্বস্থ কাশবনের মধ্য থেকে আঁখি আক্তার (২৭) নামের এক যুবতীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (০৪ জুলাই) দুপুর ১টায় অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে। নিহত তরুণী বগুড়া সদরের চক ফরিদ গ্রামের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তাকে পাশবিক নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে।
স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জনৈক এক ব্যাক্তি প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে কাশবনের মধ্যে একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের জানায়। তখন স্থানীয়রা বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে পুলিশকে খবর দেয়। এ সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে যুবতীর লাশ উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, সোমবার (০৩ জুলাই) রাতে যেকোন সময়ে কে বা কারা ধর্ষণের পরে মেয়েটিকে হত্যা করে ফেলে রেখে যায়। মৃতের মাথায় ও শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। যুবতীর পরণে কালো সেলোয়ার কামিজ ও কালো ওড়না ছিল।
হরিণটানা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) রঞ্জন কুমার গাইন বলেন, দুপুর ১টার দিকে স্থানীয়রা রায়েরমহল আন্দিরঘাট ব্রীজ এলাকায় নারীর মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরাতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। নিহত তরুণীর শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে পাশবিক নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, প্রাথমিক অবস্থায় নিহত তরুণীর পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। পরে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) মাধ্যমে নিহতের আঙ্গুলের ছাপ পরীক্ষা করে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান। যুবতীর পরণে কালো সেলোয়ার কামিজ ও কালো ওড়না ছিল বলেও তিনি জানান। তবে কে বা কারা এবং কেন তাকে হত্যা করা হয়েছে, তা তিনি নিশ্চিত করে বলতে পারেননি।
কেএমপি’র ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি বলেন, মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে পুুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা, র‌্যাব ও সিআইডি ঘটনাস্থলে যান। সেখান থেকে সকল আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃত নারী ওই এলাকার বাসিন্দা নয়, অন্য এলাকা থেকে এনে কাশবনের মধ্যে নিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত তরুণী বগুড়া সদরের চক ফরিদ গ্রামের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। তাকে পাশবিক নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে। তিনি আরো বলেন, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) মাধ্যমে নিহতের আঙ্গুলের ছাপ পরীক্ষা করে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়। ময়না তদন্তের জন্য লাশটি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত অব্যহত রয়েছে। মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়ার পরে খুনের প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।
এ/আর

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu