বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১০ পূর্বাহ্ন

জেলা দলিল লেখক সমিতির প্রস্তুতি সভায় বাধা

দেশ প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর, ২০২৩
  • ২০৮ পড়েছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় যোগ দেবে খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতি। কিন্তু প্রস্তুতি সভায় বাধা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতির বিরুদ্ধে। খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সদস্যরা এ অভিযোগ করেছেন এবং দু:খ প্রকাশ করেছেন। এ নিয়ে খুলনা জেলা এবং উপজেলা সমিতির সদস্যদের মধ্যে চলছে নিন্দার ঝড়।

ঘটনা সূত্রে, ১৩ই নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুলনার দলীয় জনসভায় যোগ দিবেন। সর্বমহলে এ নিয়ে চলছে খুলনা বিভাগ জুড়ে বিশাল প্রস্তুতি। এ জনসভায় যোগ দিতে খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সকল সদস্যরা ২৮শে অক্টোবর আলোচনা সভার আয়োজন করেন। কিন্তু খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি শেখ মো. আলমগীর বাধা দেন। শেখ মো. আলমগীর সকলকে খুলনা সদর দলিল লেখক সমিতির মিলনায়তনে এ সভা করতে নিষেধ করেন। তিনি প্রস্তুতি ও সাংগঠনিক সভায় থাকতে পারবেন না বলে সকলকে জানান। খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি শেখ মো. আলমগীরের ২৮ তারিখ কেন্দ্রীয় প্রোগ্রাম রয়েছে বলে সকলকে জানান। পরবর্তীতে সমিতির সকল সদস্যরা আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে খুলনা কেসিসি মার্কেটে এ আলোচনা সভা করেন। তবে, শেখ মো. আলমগীরের এরুপ বাধা প্রদানের কারনে দলিল লেখক সমিতির মধ্যে চলছে আলোচনা ও নিন্দার ঝড়।

অভিযোগকারীরা বলেছেন, খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি শেখ মো. আলমগীর বিএনপি করে বলে তার ঢাকায় প্রোগ্রাম ছিলো। সে উপস্থিত না থাকতে পারলেও আমাদের আলোচনা সভায় বাধা দেয়া তার উচিত হয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসবে বলে খুলনা বিভাগ, খুলনা জেলা এবং খুলনার সকল উপজেলার দলিল লেখক সমিতির উদ্যোগে এ আলোচনা সভা করে জনসভায় যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

তথ্যসূত্রে, এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ দলিল লেখক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম—সাধারণ সম্পাদক মোঃ সালাউদ্দিন খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা বিভাগীয় দলিল লেখক সমিতির সভাপতি মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান (লাইজু), খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সিনিয়র সহ—সভাপতি আলহাজ্ব গাজী বজলুর রহমান, এবং সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ বাহাউদ্দিন খন্দকার।

দলিল লেখক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বলেন, শেখ মো. আলমগীর বিএনপি করেন। তিনি এ প্রস্তুতি সভায় বাধা দেয়ার চেষ্টা করেছেন। তার বিরুদ্ধে সমিতি কর্তৃক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো বলেন, খুলনা বিভাগীয় দলিল লেখক সমিতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় ১৩ তারিখ সম্মিলিতভাবে যোগ দেবে।

দলিল লেখক সমিতির খুলনা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মোঃ বাহাউদ্দিন খন্দকার বলেন, আমরা দলিল লেখক সমিতির সদস্যরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় যোগ দিব । এজন্য জেলা এবং উপজেলার সদস্যরা আলোচনা সভা ডেকেছিলাম খুলনা সদর দলিল লেখক সমিতির মিলনায়তনে। কিন্তু খুলনা জেলা শাখার সভাপতির ২৮ই অক্টোবর ঢাকায় প্রোগ্রাম থাকার কারনে তিনি উপস্থিত ছিলেন না। তিনি আরো বলেন, আমাদের এক পর্যায়ে খুলনা কেসিসি মার্কেটে এ সভা করতে হয়েছে। আমরা ১৩ তারিখ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় অবশ্যই যোগ দেব।

খুলনা জেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি শেখ মো. আলমগীর বলেন, আমাকে এ বিষয়ে কোন কিছুই অবগত করা হয়নি। আমাদের সংগঠনটি একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। তিনি আরো বলেন, আমার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। অসাধু ব্যক্তিরা তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এ চক্রান্ত করেছে বলে দাবী করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu