• E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

×
সংবাদ শিরোনাম :
দেশের বিভিন্ন স্থানে ৫.৪ মাত্রার ভূমিকম্প অনুভূত রামপালে কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে উত্যাক্তের প্রতিবাদ করায় প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে মা মেয়ে আহত অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো “সবুজ পৃথিবীর সন্ধানে” প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান খুলনায় তিনদিনের কর্মসুচি – শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এঁর ৪৩তম শাহাদাতবার্ষিকী খুমেক হাসপাতালের সামনে থেকে ৯টি দেশি অস্ত্র উদ্ধার যশোরে মাদক ব্যবসায়ীর যাবজ্জীবন “ত্রান চাইনা,টেকসই বেড়িবাঁধ চাই”  সরকার জরুরী ভিত্তিতে বেঁড়িবাঁধ সংস্কার করে জলবন্দি মানুষদের মুক্ত করবে-ভুমিমন্ত্রী  ঘূর্নিঝড় রেমালে ক্ষতিগ্রস্থদের সহায়তায় সার্বক্ষণিক পাশে রয়েছেন সরকার-ত্রান প্রতিমন্ত্রী মোঃ মহিববুুর রহমান পাউবোর ব্যর্থতায় সহস্রাধিক মানুষের সেচ্ছাশ্রমে মেরামতের পর পরই ভেঙে গেল কয়রার বেঁড়িবাঁধ পরমানু বিজ্ঞানী ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী খুলনায় ‘দেশের অগ্রগতিতে বিজ্ঞান চর্চা’ শীর্ষক আলোচনা সভা

বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে খুলনা পিডব্লিউডি—১

  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৯৩ পড়েছেন

খুলনা গণপূর্ত অধিদপ্তর কতৃর্ক বাস্তবায়নাধীন রয়েছে পাঁচটি মন্ত্রনালয়ের একাধিক প্রকল্পের কাজ। আধুনিক বাংলাদেশ নির্মানে সরকার ধাপে ধাপে উন্নয়ন কার্যক্রমকে বাস্তবায়ন করছে। এরই ধারাবহিকতায় খুলনায় সরকারের উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়নে ব্যস্ত সময় পার করছে খুলনা গণপূর্ত অধিদপ্তর—১ কার্যালয়। খুলনা গণপূর্ত অধিদপ্তর—১ কার্যালয়ের সর্বশেষ তথ্যমতে, একাধিক মন্ত্রনালয়ের ৬৬টি নির্মান এবং উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। তথ্যসূত্রে, খুলনাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওয়াতায় ১২টি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। যার মধ্যে ৩টি কাজ ইতিমধ্যে শতভাগ সমাপ্ত হয়েছে। বাকি ৯টি কাজ প্রায় সমাপ্তের পথে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের আওয়াতাধীন খুলনা বিভাগীয় কমিশনারের নতুন কার্যালয় ভবন এবং অডিটরিয়াম নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নের কাজ প্রায় সমাপ্তের পথে রয়েছে। এ প্রকল্পের কাজ প্রায় ৯৫% সমাপ্ত হয়েছে। আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বাংলাদেশের ৬৪টি জেলা সদরে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ভবন নির্মাণ প্রকল্পের অংশ হিসেবে খুলনাতেও চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ভবন নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করেছে খুলনা গণপূর্ত—১। এছাড়াও এ মন্ত্রনালয়ের ৮টি কাজ চলমান রয়েছে। তার মধ্যে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জন্য সমতল ভূমিতে তিনতলা ভিত্তি সহ তিনতলা উপজেলা মসজিদ কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজটি ২৯% পর্যন্ত হয়ে থেমে আছে। এ কাজের চুক্তিমূল্য ১৩২৪.৬১ লক্ষ টাকা। কাজের সময়সীমা আঠার মাস অতিবাহিত হলেও কাজ শেষ না হওয়াতে পূনরায় দরপত্র মূল্যায়নের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা যায়। এ মন্ত্রনালয়ের আওয়াতাধীন বাকি কাজগুলো প্রায় সমাপ্তের পথে রয়েছে বলে জানা যায় তথ্য সূত্রে। অন্যদিকে, সব থেকে বেশী চলমান কাজের মধ্যে রয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন মূলক কাজের প্রকল্পগুলো। যার মধ্যে রয়েছে ১৯টি প্রকল্পের কাজ। যার ৯০% কাজ বাস্তবায়নাধীন হওয়ার পর হস্তান্তের জন্য প্রস্তুত রয়েছে। বাকি প্রকল্পের কাজগুলো সমাপ্তের পথে রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় উন্নয়ন মূলক কাজের দুটি প্রকল্পের কাজ খুলনা গণপূর্ত—১ হাতে নিলেও একটি প্রকল্পের কাজ বন্ধ রয়েছে কাঙ্খিত জায়গা না পাওয়াতে। এ বিষয়ে দপ্তরটি জানায়, চিহৃিত জায়গা কম থাকায় এখনো কাজ শুরু করা সম্ভব হয়নি। এ প্রকল্পটির নাম ‘১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পাকিস্থানী হানাদার বাহিনী কর্তৃক গণহত্যার জন্য ব্যবহৃত বধ্যভূমিসমূহ সংরক্ষণ ও স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্প। খুলনার ফুলতলার শিরোমনি, দিঘলিয়ার দেয়াড়া, ফুলতলার ছাতিয়ানি প্রাইমারী স্কুলের মাঠে, ফুলতলার পিপরাইল চারবাটিঘাট নামক স্থানে মোট ৪টি বধ্যভূমিসমূহ সংরক্ষণ ও স্মৃুতিস্তম্ভ নির্মাণের কাজ। অন্য একটি প্রকল্প হলো শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও অন্যান্য বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধিস্থল সংরক্ষণ ও উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্প। খুলনা জেলার ফুলতলা, দিঘলিয়া ও তেরখাদা উপজেলার সমাধিস্থল সংরক্ষণ ও উন্নয়ন কাজটি প্রায় ৭৬% কাজ সমাপ্ত হয়েছে। এদিকে, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওয়াতাধীন ২৫টি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। এর মধ্যে তিনটি কাজ প্রায় সমাপ্তের পথে। চলমান প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে খুলনার বহুল প্রতিক্ষিত ক্যান্সার হাসপাতাল। যার প্রায় ৪০% কাজ সমাপ্তের পথে। বাকি কাজ চলতি বছরেই শেষ হবে বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। গণপূর্ত অধিদপ্তর খুলনা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী এ কিউ এম শাহজালাল মজুমদার বলেন, সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা এগিয়ে চলছি। উন্নয়ন চলমান এবং চলছে। আমাদের ওপর দেয়া দায়িত্ব আমরা পালন করছি। চলমান প্রকল্পের কাজগুলো আমরা সঠিক রুপে বাস্তবায়নের চেষ্টা করছি। তিনি আরো বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সাথে সামাঞ্জস্য রেখে আমাদের নির্মান কাজকে আমরা আধুনিকায়ন করে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। খুলনা গণপূর্ত অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী অমিত কুমার বিশ্বাস বলেন, ক্যান্সার হাসপাতাল ১৫ তলা বিশিষ্ট। এখন পর্যন্ত পঞ্চম তলা পর্যন্ত কাজ পরিসমাপ্তি হয়েছে। এক বছরের মধ্যে খুলনা ক্যান্সার হাসপাতালের নির্মান কাজ বাস্তবায়ন হবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, ‘১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে পাকিস্থানী হানাদার বাহিনী কর্তৃক গণহত্যার জন্য ব্যবহৃত বধ্যভূমিসমূহ সংরক্ষণ ও স্মৃতি স্তম্ভ নির্মাণ’ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন থেমে রয়েছে। কাঙ্খিত জায়গা পেলেই, তিন—চার মাসের মধ্যে এ কাজ বাস্তবায়ন করা সম্ভব বলে তিনি জানান। অমিত কুমার বিশ^াস বলেন, পিডব্লিউডি সরকারের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে। সরকারের সকল উন্নয়ন সেক্টরের সাথে আমরা কাজ করছি। তিনি উল্লেখ করে বলেন, শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ও পিডব্লিউডি’র মাধ্যমে হবে। গুনগত মান বজায় রেখে পিডব্লিউডি ভবিষ্যতেও কাজ করবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এধরনের আরো সংবাদ

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: BD IT SEBA