বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন

নতুনদের আস্থায় নিলেন শেখ হাসিনা

রিপোর্টার
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ২৬ পড়েছেন

জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে মনোনয়ন ঘিরে আগ্রহ ও আলোচনার সমাপ্তি ঘটাল আওয়ামী লীগ। গতকাল বুধবার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে দলের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড ৪৮ জনকে মনোনয়ন দেয়। পরে দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দলের মনোনয়নপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন। তাদের নামের তালিকা ঘেঁটে দেখা গেছে- এবারের মহিলা আসনে নতুন ও পুরনোর মিশ্রণ আছে; রয়েছেন শিক্ষক, সাংবাদিক, সংগীতশিল্পী, রাজনীতিক, আইনজীবী, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধি। তাদের মধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের নৌকা প্রতীক নিয়ে পরাজিত কয়েক নারী প্রার্থী এবং আসন সমঝোতার কারণে মনোনয়নবঞ্চিত একজনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। তালিকায় আট কেন্দ্রীয় নেতার ঠাঁই হয়েছে।

আওয়ামী লীগের পাঠানো তালিকা অনুযায়ী দলের মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থীরা হলেন- রেজিয়া ইসলাম (পঞ্চগড়), দ্রোপদী দেবি আগরওয়াল (ঠাকুরগাঁও), আশিকা সুলতানা (নীলফামারী), আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা (জয়পুরহাট), কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি (নাটোর), জারা জেবিন মাহবুব (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), রুনু রেজা (খুলনা), ফরিদা আক্তার বানু (বাগেরহাট), মোসা. ফারজানা সুমি (বরগুনা), খালেদা বাহার বিউটি (ভোলা), নাজনীন নাহার রশীদ (পটুয়াখালী), ফরিদা ইয়াসমিন (নরসিংদী), উম্মি ফারজানা ছাত্তার (ময়মনসিংহ), নাদিয়া বিনতে আমিন (নেত্রকোনা)।

তালিকায় রয়েছেন মাহফুজা সুলতানা মলি (জয়পুরহাট), আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য পারভীন জামান কল্পনা (ঝিনাইদহ), আরমা দত্ত (কুমিল্লা), লায়লা পারভীন (সাতক্ষীরা), সদ্য সাবেক শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান (খুলনা), বেদৌড়া আহমেদ সালাম (গোপালগঞ্জ), শবনম জাহান (ঢাকা), পারুল আক্তার (ঢাকা), সাবেরা বেগম (ঢাকা), আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ (বরিশাল), নাহিদ ইজাহার খান (ঢাকা), ঝর্ণা হাসান (ফরিদপুর), সদ্য সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেছা (মুন্সীগঞ্জ), শাহেদা তারেখ দীপ্তি (ঢাকা), অনিমা মুক্তি গোমেজ (ঢাকা), শেখ আনার কলি পুতুল (ঢাকা)।

মাসুদা সিদ্দিক রোজি (নরসিংদী), আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য তারানা হালিম (টাঙ্গাইল), আওয়ামী লীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার (টাঙ্গাইল), মেহের আফরোজ চুমকি (গাজীপুর), অপরাজিতা হক (টাঙ্গাইল), হাছিনা বারী চৌধুরী (ঢাকা), নাজমা আক্তার (গোপালগঞ্জ), রুমা চক্রবর্তী (সিলেট), আওয়ামী লীগের কৃষি সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী (লক্ষ্মীপুর), আশ্রাফুননেছা (লক্ষ্মীপুর), কানন আরা বেগম (নোয়াখালী), শামীমা হারুন লুবনা (চট্টগ্রাম), ফরিদা খানম (নোয়াখালী), দিলোয়ারা ইউসুফ (চট্টগ্রাম), আওয়ামী লীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক ওয়াসিকা আয়শা খান (চট্টগ্রাম), জ্বরতী তঞ্চঙ্গা (রাঙামাটি), আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য সানজিদা খানম (ঢাকা), নাছিমা জামান ববি (রংপুর)। এদের মধ্যে কানন আরা বেগমকে ১৪-দলীয় জোটের শরিক দলের বিবেচনায় মনোনীত করা হয়।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে দলের স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী (সাবেক সংরক্ষিত এমপি), কেন্দ্রীয় সদস্য পারভীন জামান কল্পনা, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ (দ্বাদশ নির্বাচনে বরিশাল-৪ থেকে দলের মনোনয়ন পেলেও বিদেশি নাগরিকত্ব থাকার জটিলতায় মনোনয়ন বাতিল হয়), কেন্দ্রীয় সদস্য তারানা হালিম (সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও সংরক্ষিত এমপি), শিক্ষা সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, অর্থ সম্পাদক ওয়াশিকা আয়শা খান (সাবেক সংরক্ষিত এমপি), কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম (সাবেক সংরক্ষিত এমপি)।

এ তালিকায় অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম ও মেহের আফরোজ দ্বাদশ জাতীয় সংসদে দলের মনোনয়ন পেলেও স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছে পরাজিত হন। ফরিদুন্নাহার লাইলি দলীয় মনোনয়ন পেলেও আসন সমঝোতায় তাকে সরে দাঁড়াতে হয়।

সংরক্ষিত মহিলা আসনে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক ফরিদা ইয়াসমিন ঠাঁই পেলেন। আদিবাসী জ্বরতী তঞ্চঙ্গ্যাও আসলেন সংরক্ষিত আসনে। সংগীতশিল্পী ও লেখক অনিমা মুক্তি গমেজের নাম রয়েছে এই আসনের তালিকায়।

বিনোদন অঙ্গনের তারকাদের অনেকে সংরক্ষিত আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। তাদের মধ্যে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন সুজাতা বেগম, লাকী ইনাম, সুবর্ণা মুস্তাফা, শমী কায়সার, রোকেয়া প্রাচী, তারিন জাহান, শিমলা, মেহের আফরোজ শাওন, তানভীন সুইটি, অপু বিশ্বাস, নিপুণ, শামীমা তুষ্টি, শাহনুর, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, সোহানা সাবা, নুসরাত ফারিয়াসহ আরও অনেকে। তবে তাদের কেউ মনোনয়ন পাননি।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, দ্বাদশ সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার তারিখ আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি রবিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি। আপিল দায়ের ২২ ফেব্রুয়ারি এবং আপিল নিষ্পত্তি হবে ২৪ ফেব্রুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ ফেব্রুয়ারি, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ ফেব্রুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ হবে ১৪ মার্চ।

উল্লেখ্য, স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা আওয়ামী লীগকে সমর্থন দেওয়ায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদে দলটি ৪৮ আসন পায়। আর বাকি দুটি আসন পাবে সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি।

এসব আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে ফরম কিনেছেন ১ হাজার ৫৪৯ জন। ফলে প্রতিটি আসনের বিপরীতে মনোনয়নপ্রত্যাশীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৩২ জনে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu