বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

সুরের ঝংকার থামালেন গজল কিং পঙ্কজ উদাস

রিপোর্টার
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৩৬ পড়েছেন

না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন উপমহাদেশের গজল সংগীতের প্রবাদপ্রতিম ব্যক্তিত্ব পঙ্কজ উদাস। তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। গতকাল সোমবার ইন্সটাগ্রামে পঙ্কজ উদাসের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার মেয়ে নায়াব উদাস। তিনি বলেছেন, গভীর শোকের সঙ্গে জানাচ্ছি, পদ্মশ্রী শিল্পী পঙ্কজ উদাস ২৬ ফেব্রুয়ারি মারা গেছেন।
পঙ্কজ উদাসের জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, গতকাল বেলা ১১টার দিকে ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে মারা যান তিনি। তিনি দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন। গত কয়েকদিন ধরে তার শারীরিক অবস্থা ভালো ছিল না। আজ মঙ্গলবার তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।
চার দশকের সংগীত ক্যারিয়ারে হিন্দি সিনেমা এবং ইন্ডি-পপের জগতে পঙ্কজ উদাসের অবদান ভোলার নয়। লাইভ অনুষ্ঠান হোক বা অ্যালবাম কিংবা ছবির গান, আশি ও নব্বইয়ের দশকে দর্শককে মুগ্ধ করেছেন তিনি। ১৯৮০ সালে ‘আহত’ শিরোনামের গজল অ্যালবাম প্রকাশের মাধ্যমে তিনি সংগীত দুনিয়ায় পা রাখেন। ‘চান্দি জ্যায়সা রঙ্গ’, ‘না কাজরে কি ধার’, ‘দিওয়ারো সে মিল কর রোনা’, ‘আহিস্তা’, ‘থোড়ি থোড়ি প্যার করো’, ‘নিকলো না বেনাকাব’- পঙ্কজ উদাসের গাওয়া অসাধারণ এসব গজল আজো শ্রোতাদের মনের রসদ। ‘নেশা’, ‘পয়মানা’, ‘হসরত’, ‘হামসফর’-এর মতো বেশ কয়েকটি বিখ্যাত অ্যালবামও রয়েছে তার ঝুলিতে। ভক্তদের কাছে তিনি ছিলেন- গজল কিং।
১৯৫১ সালের ১৭ মে গুজরাতের জেটপুরে জন্ম পঙ্কজ উদাসের। কেশুভাই উদাস ও জিতুবেন উদাসের তিন সন্তানের মধ্যে পঙ্কজ ছিলেন কনিষ্ঠ। পরিবারসূত্রেই তার সংগীতে হাতেখড়ি। সন্তানদের সংগীতের প্রতি উৎসাহ দেখে কেশুভাই তাদের রাজকোটের সংগীত একাডেমিতে ভর্তি করে দেন। শুরুতে তবলার প্রশিক্ষণ নিলেও পরবর্তী সময়ে গুলাম কাদির খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিতে শুরু করেন। পরবর্তী সময়ে গোয়ালিয়র ঘরানার জনপ্রিয় শিল্পী নবরং নাগপুরকরের কাছে তালিম নিতে মুম্বাই চলে আসেন পঙ্কজ। সিনেমার গানে তার অভিষেক হয় ‘হাম তুম অউর ওহ’ ছবির মাধ্যমে। তবে ১৯৮৬ সালে ‘নাম’ ছবিতে তার গাওয়া ‘চিঠঠি আয়ি হ্যয়’ গানটি তাকে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছে দেয়। তারপর ১৯৯১ সালে ‘সাজন’ ছবির ‘জিয়ে তো জিয়ে’ গানটিও তার কেরিয়ারের অন্যতম হিট। বেশ কিছু বাংলা গানও গেয়েছেন পঙ্কজ উদাস। এর মধ্যে ‘চোখ তার চোরাবালি’, ‘তুমি খাঁচা হলে আমি হবো পাখি’, ‘যদি আরেকটু সময় পেতাম’, ‘কতো স্বপ্ন দেখেছি’, ‘গোলাপ ঠোঁটে রঙিন হাসি’, ‘চোখে চোখ রেখে’, ‘তোমার চোখেতে ধরা’ ইত্যাদি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।
সারা জীবনে দেশ-বিদেশের একাধিক সম্মানে ভূষিত হয়েছেন পঙ্কজ উদাস। ২০০৬ সালে ভারত সরকার তাকে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত করে। পঙ্কজ উধাসের মৃত্যুতে শোকাহত সেলিব্রিটিরা। গায়ক এবং সুরকার শঙ্কর মহাদেবন হতবাক। তার মতে, পঙ্কজের চলে যাওয়া সংগীত জগতের জন্য বড় ক্ষতি, যা কখনো পূরণ করা সম্ভব নয়। শোকার্ত সোনু নিগম সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখেছেন, ‘আমার শৈশবের গুরুত্বপূর্ণ একটা অধ্যায় পঙ্কজ উদাস, তাকে হারিয়ে ফেললাম। আপনাকে আজীবন মিস্ করব। আপনার মৃত্যুর খবরে শোকাহত। আমাদের জীবনে থাকার জন্য ধন্যবাদ।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu