বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০৬ পূর্বাহ্ন

ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের ৬০ হাজার পরিবারের মাঝে  ইফতার সামগ্রী বিতরণ

তানভির আহমেদ
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ১৩ মার্চ, ২০২৪
  • ১১০ পড়েছেন

পিরোজপুর জেলার  ভান্ডারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও  বাংলাদেশের নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান মিরাজুল ইসলামের উদ্যোগে ব্যক্তিগত অর্থায়নে  ভান্ডারিয়া উপজেলার ৬০ হাজাজের অধিক পরিবারকে ইফতার সামগ্রী  হিসেবে বিতরণ করা হচ্ছে। মিরাজুল ইসলাম ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে  উপজেলার ড় ৬টি  ইউনিয়ন  ১টি পৌরসভা সহ ৬৩ ওয়ার্ডে সকল পরিবারে  ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হবে। ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার কাজে সহায়তা করছেন স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের স্বেচ্ছাসেবীগণ,  ইফতারের প্রতি প্যাকেটে রয়েছে তেল, চিড়া, বুট, সেমাই, খেজুর, দুধ, চিনিসহ ১১ ধরনের  খাদ্য ও পানীয় সামগ্রী।

ভান্ডারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মিরাজুল ইসলাম বলেন, আমি এবং আমার পরিবার সব সময় ভান্ডারিয়ার মানুষের পাশে ছিলাম এবং আগামীতেও থাকব। বৈশ্বিক আর্থিক সংকটের বাস্তবতায়  উপজেলাবাসীর মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। কোভিট ১৯ এর লকডাউনের  সময়ে যেমন  আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের পাশে থেকে জীবনরক্ষা কারি  সামগ্রি ও খাদ্যদ্রব্য  পৌছিয়ে দিয়েছ  রমজান মাসে সবাই যাতে নির্ভিগ্নে রোজা রাখতে পারে সেই দিকে লক্ষ্য রেখে প্রত্যেক মানুষের ঘরে ঘরে ইফতার সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। এ ধরনের মানবিক কাজ আমাদের চলমান থাকবে।এই বিষয়টি কোন দৃষ্টিতে দেখছেন জানতে চাইলে ৫নং ধাওয়া ইউনিয়নের বার বার নির্বাচিত রাষ্ট্রীয় পদক প্রাপ্ত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সিদ্দিকুর রহমান টুলু বলেন,এটা মনে হয় আমাদের সমাজে বিরল ঘটনা,অনেকেরই আর্থিক সক্ষমতা আছে কিন্তু  এই রকম  উদার ও মানবিক জনপ্রতিনিধি হয়না, মিরাজুল ইসলাম প্রতি বছর বিভিন্ন পর্বে  ও দিবসে অসহায় দুঃস্হ্দের মাঝে অসংখ্য  অটো রিকসা, ভ্যান ও সাধারন রিকসা  বিতরণ  করে কর্মসংস্থানের ব্যবস্হা করেছেন,পশারিবুনিয়া এন এম কারিগরি দাখিল মাদরাসার সুপার মো. ছাইফুল্লাহ বলেন কোনো  বিষয়ে তার কাছে সহযোগিতা চাইলে  কখন নিরুৎসাহিত করেননি,মানুষকে  সাহায্য সহযোগীতার ক্ষেত্রে তার তুলনা হয়না,ইউপি মেম্বর  এসোসিয়েশন এর উপজেলা সাধারন সম্পাদক ফিরোজ হোসেন বলেন তার সহযোগিতা ভান্ডারিয়া উপজেলায় পায়নি এমন পরি্বার খুজে পাওয়া যাবে না!  ছাত্রলীগ নেতা,শান্তু মারিয়াম ইউনির্ভাসিটির  শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান রাজিব বলেন উপজেলা চেয়ারম্যান  মিরাজ ভাই ও এমপি মহারাজ ভাই তাদের কাছে গরিব   মানুষের মেয়ের বিবাহ ও  চিকিৎসার জন্য কেহ কখনো গেলে   খালি হাতে আসেনি!

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এধরনের আরো সংবাদ

Categories

© All rights reserved © 2019 LatestNews
Hwowlljksf788wf-Iu